Posts Tagged :

professional development

ওপিডি; পেশাগত উন্নয়নের এক অনন্য প্ল্যাটফর্ম

4000 2668 Jamia Rahman Khan Tisa

বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়া শেষ করেই চাকুরিতে যোগ দিতে আমরা প্রায় সবাই ই চাই। কিন্তু এক্ষেত্রে আমাদের কিছু সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। কেননা বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের বেশিরভাগ সময় আমাদের কাটে প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনা আর বন্ধুবান্ধবের সাথে সময় কাটিয়ে। বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়া শেষ হওয়ার আগে আমরা কেউই ক্যারিয়ার নিয়ে বিশেষ ভাবিনা। আবেদন প্রক্রিয়া, প্রয়োজনীয় দক্ষতা, বাছাই প্রক্রিয়া, প্রফেশনাল এটিকেট সম্পর্কে আমাদের সঠিক জ্ঞানের প্রচুর ঘাটতি থাকে। ফলে আমরা পছন্দের চাকুরি বা ইন্টার্নশিপের সুযোগটি হারাই। কোন প্রফেশন বেছে নেবো সেটা নিয়েও আমরা সন্দিহান থাকি। কাজের পরিবেশ কেমন হবে সেটা নিয়েও অনেকের ধারণা থাকেনা। বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে এই বিষয়গুলোকে খুব একটা গুরুত্ব না দেওয়ার ফলাফল পড়াশোনা শেষে আমাদের ভালো মতনই ভুগতে হয়। বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের এই সমস্যার কথা মাথায় রেখেই ২০১৬ সালের এপ্রিলে বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশীপ সেন্টার (বিওয়াইএলসি)র একটি অংশ হিসেবে যাত্রা শুরু করে অফিস অফ প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট (ওপিডি)।

 

বিওয়াইএলসির বিভিন্ন লিডারশীপ ট্রেনিং প্রোগ্রামে অংশ নেওয়া গ্র্যাজুয়েটরা ওপিডির বিভিন্ন প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট ওয়ার্কশপে অংশ নিতে পারে। ওপিডির ব্যবস্থাপক আশফাক কবির জানালেন ওপিডির কার্যক্রমের তিনটি উল্লেখযোগ্য দিক হলো প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট ওয়ার্কশপ, চাকুরির সুযোগ তৈরি এবং চাকুরিদাতাদের সাথে তরুণদের সংযোগ স্থাপন করিয়ে দেওয়া। প্রতিবছর ওপিডি থেকে দেশের বিভিন্ন সেরা প্রতিষ্ঠানগুলোর শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে বিওয়াইএলসি গোল টেবিল বৈঠকের আয়োজন করা হয়। তাদের ফিডব্যাক এবং বর্তমান চাকুরিবাজারের চাহিদার কথা মাথায় রেখেই আমাদের প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট ওয়ার্কশপগুলোর কারিকুলাম সাজানো হয়েছে। এখানে মূলত শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার বিষয়ক গাইডলাইন, প্রয়োজনীয় দক্ষতা অর্জন এবং কর্মক্ষেত্রের বাস্তব পরিবেশ সম্পর্কে ধারণা প্রদানের উপর জোর দেওয়া হয়। একটা ইন্টারভিউ কিভাবে কার্যকর করতে হয়, কিভাবে রেজিউমি এবং কভার লেটার লিখতে হয়, নেগোসিয়েশনের ধরণ কেমন হবে এ সমস্ত বিষয়ে হাতে কলমে প্রশিক্ষণ লাভের সুযোগ থাকে ওয়ার্কশপগুলোতে।

 

ওপিডির প্রতিটি ওয়ার্কশপে দেশের ভিন্ন ভিন্ন খাতের শীর্ষস্থানীয় পর্যায়ে কাজ করা মানুষেরা অতিথি হিসেবে আসেন এবং তাদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন। তাদের দৃষ্টিতে বর্তমান চাকুরিবাজার, প্রয়োজনীয় দক্ষতার কথা তুলে ধরেন। শিক্ষার্থীরাও অতিথিকে প্রশ্ন করার সুযোগ পায়। এতে করে শিক্ষার্থীরা বাস্তব কর্মজীবন জীবন সম্পর্কে ধারণা পায়। নিজেদের কর্মজীবন পরিকল্পনা এবং সেই অনুযায়ী নিজেদের প্রস্তুত করতে পারে। ওপিডি ওয়ার্কশপের প্রশিক্ষণার্থী নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সুরভী মোহনা জানালেন, “ওপিডি থেকেই আমি জেনেছি সিভি আর রেজিউমি এক নয়। এখান থেকে আমি চাকুরিবাজার সম্পর্কে ধারণা লাভের পাশাপাশি প্রয়োজনীয় দক্ষতাও অর্জন করতে পেরেছি।” আরেক প্রশিক্ষণার্থী বুয়েটের দিমিত্রি জানালেন, “ওপিডি ওয়ার্কশপে আমার জন্য সবচেয়ে সহায়ক ছিল ‘মক ইন্টারভিউ সেশন’ এবং ‘ইলিভেটর পিচ’। এই দুটি বিষয় সম্পর্কে হাতেকলমে জ্ঞান লাভের সুযোগ আমি পেয়েছি।”

 

শীর্ষস্থানীয় চাকুরিদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর অংশগ্রহণে ওপিডির উদ্যোগে প্রতিবছরই আয়োজিত হয় বিওয়াইএলসি ক্যারিয়ার ফেয়ার। যাতে সকল বিওয়াইএলসি গ্র্যাজুয়েটরা অংশ নেওয়ার সুযোগ পায়। ক্যারিয়ার ফেয়ারে প্যানেল ডিসকাশন, রেজিউমি সাবমিশন ও তথ্য আদান প্রদানের সুযোগ থাকে। উপস্থিত থাকেন দেশের সেরা প্রতিষ্ঠানগুলোর মানবসম্পদ উন্নয়ন কর্মকর্তারা। স্পট ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে অনেকে পছন্দের প্রতিষ্ঠানে চাকুরি লাভের সুযোগ পায়। সবকিছু মিলিয়ে ক্যারিয়ার ফেয়ারে চাকুরিবাজারকে শিক্ষার্থীরা খুব কাছ থেকে দেখার ও জানার সুযোগ পায় যা তাদের উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করে

A letter for BYLC and its graduates

4980 2904 Zehra Simeen Islam Rahim

Dear Graduates,

It was wonderful to engage with you at the BYLC Office of Professional Development (OPD) career development workshop on 20 May 2017. This is a historic time for you all. At this point in time, you stand ready at the brink of an exciting journey that will make you a professional and a career minded person. Please give yourself a big round of applause. read more

কভার লেটারের খুঁটিনাটি

720 400 Jamia Rahman Khan (Tisa)

চাকুরিতে আবেদন করার সময় রেজিউমির সাথে অত্যাবশ্যকীয় যে জিনিসটি লাগে তা হল কভার লেটার। রেজিউমিতে জায়গাস্বল্পতার কারণে নিজের সম্পর্কে অনেক কথাই তুলে ধরা হয়না। একটু মাথা খাটিয়ে লিখতে পারলে কভার লেটারের মাধ্যমে তা অনেকটাই ফুটিয়ে তোলা সম্ভব। কভার লেটার লেখার কিছু টিপস নিয়েই সাজানো হয়েছে এই লেখাটি। read more

‘Intern’alized

1500 1000 Noshin Noorjahan

I am a striving pharmacy student and an intern at Bangladesh Youth Leadership Center (BYLC). About a year back, the latter made a big difference in my life. The all caps ‘BIG’ kind. read more

4 tips to create a positive first impression in an interview

1500 1000 Md. Towhid Khan

“Tell me about yourself”, “What are your strengths?”, “What is your greatest weakness?” etc. are some of the few common questions that you expect to be bombarded with at the beginning of an interview. Most of you think, to ace an interview we have to give good answers to these questions. However, even before you take the opportunity to convey those perfectly thought-out answers (that you probably toiled days to prepare), you will already have all interviewers’ eyes on you, evaluating your potential to fit the job role and the organization. read more

প্রোফাইল খুলুন “লিংকডইন” এ

1200 630 Jamia Rahman Khan (Tisa)

আজকাল সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের জীবনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটা ভূমিকা পালন করছে। বিশেষ করে যোগাযোগ ক্ষেত্রে। এটা এখন আর শুধুই বন্ধুবান্ধব আর আত্মীয়স্বজনের সাথে যোগাযোগের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। ভার্চুয়াল যোগাযোগের একটা অন্যতম মাধ্যম হলো লিংকডইন। নিজেকে তুলে ধরার এক অনন্য প্ল্যাটফর্ম। এখানে আপনি আপনার প্রোফাইল সাজাতে পারেন যা যেকোনো সংখ্যক চাকুরিদাতা খুব সহজেই দেখতে পারেন। আজকাল অনেক প্রতিষ্ঠানই প্রার্থীর লিংকডইন প্রোফাইল দেখতে চায়। গুগলে আপনার নাম লিখে সার্চ দিলেই চলে আসবে আপনার প্রোফাইল। এতে করে আপনার কাজ, সম্ভাবনা আর আগ্রহ সম্পর্কে মানুষের জানাটা আরও সহজ হয়ে যাবে।

লিংকডইন এ প্রোফাইল খোলার আগে আমাদের মাঝে একধরণের ভীতি কাজ করে। কিভাবে কি করবো? এ ক্ষেত্রে কিছু বিষয় মাথায় রাখলে ব্যাপারটা আর অত কঠিন লাগবে না আশা করা যায়।

শিক্ষা
আপনি একজন পিএইচডি শিক্ষার্থী হোন আর হাই স্কুল গ্রাজুয়েটই হোন আপনার প্রোফাইলের শিক্ষাগত যোগ্যতার অংশটিতে সেটি ফুটিয়ে তুলুন সুন্দরভাবে। আপনার আগ্রহ, দক্ষতা, উল্লেখযোগ্য বিষয় যেগুলো নিয়ে পড়েছেন সেগুলো তুলে ধরুন। বৃত্তি কিংবা কোন পুরস্কার পেয়ে থাকলে সেটাও উল্লেখ করুন।

কাজের অভিজ্ঞতা
আপনার কাজের অভিজ্ঞতা যদি হয় শুধুই ভলান্টিয়ারিং কিংবা বড়জোর ইন্টার্নশিপ তবুও অভিজ্ঞতার জায়গাটিতে সেটুকু এমনভাবে তুলে ধরুন যাতে করে আপনার দক্ষতা সম্পর্কে একটা ভালো ধারণা পাওয়া যায়। ধরা যাক, আপনি কোন দাতব্য কাজে ফান্ড রেইজিং করেছেন। লিখুন যে আপনি একজন “ফান্ড রেইজার” হিসেবে কাজ করেছেন। এতে কিন্তু বোঝা যায় যে আপনার যোগাযোগ দক্ষতা ভালো এবং আপনি উদ্যোগ নিতে জানেন।

সামারি বা পরিশিষ্ট
“ইলেভেটর পিচ” এর নাম শুনেছেন? মাত্র ৩০ সেকেন্ডে নিজেকে উপস্থাপন করা! যদিও এটা একটা কঠিন ব্যাপার বটে। কিন্তু চাকুরিদাতা আপনার পিছনে দীর্ঘ সময় নষ্ট করবে না। সামারিও অনেকটা ইলেভেটর পিচের মতই ব্যাপার। এক থেকে দুই লাইনের মধ্যে নিজেকে তুলে ধরুন। আপনি কি করতে চান এবং কেন আপনি এর যোগ্য? এই দুইটি সাধারণ প্রশ্নের উত্তর দিয়েই কিন্তু একটি সংক্ষিপ্ত অথচ আকর্ষণীয় সামারি লিখে ফেলতে পারেন আপনি।

ছবি
লিংকডইনের ছবিটি কেমন হবে? যেহেতু আপনার লিংকডইন প্রোফাইলটি চাকুরিদাতা শ্রেণির মানুষেরা দেখবেন তাই ছবি হওয়া চাই প্রফেশনাল। বিশেষ করে প্রোফাইল ছবিটি প্রফেশনাল হওয়া অতি আবশ্যক। কভার ছবিটির ব্যাপারে যদিও অত বাধ্যকতা নেই। তবে ছবিটি এমন হওয়া উচিৎ যাতে করে আপনার প্রফেশনালিজম ফুটে উঠে।

নেটওয়ার্ক বাড়ান
আপনার হয়তো খুব বেশি মানুষের সাথে যোগাযোগ নেই। এটা দুশ্চিন্তার কোন বিষয় নয়। লিংকডইন স্বয়ংক্রিয়ভাবেই আপনার ইমেইল কন্টাকট লিস্ট স্ক্যান করে আপনার পরিচিত মানুষদের কাছে আপনার প্রোফাইল পৌঁছে দেবে। লিংকডইন প্রোফাইলটিকে যুক্ত করতে পারেন টুইটার, ফেসবুক ও গুগলের মত অনলাইন মাধ্যমগুলোতে। এতে করে আরও বেশি সংখ্যক মানুষ প্রোফাইলটিকে দেখতে পারবে।

যে তিন বিষয় মাথায় রাখবেন

অপ্রয়োজনীয় তথ্য কখনোই নয়
নিজেকে ভালোমতন তুলে ধরার জন্য আপনি যা যা করেছেন তার সবই কি লিখবেন লিংকডইনে? কিন্তু একটা ব্যাপার ভাবুনতো। আপনি অ্যানিমেশন মুভি ভালোবাসেন? আপনি কম্পিউটার গেইমস ভালবাসেন? এই তথ্যগুলি কি আদৌ আপনার ভবিষ্যৎ চাকুরিদাতার জানা প্রয়োজন? হ্যাঁ। শুধুমাত্র যদি আপনি সফটওয়্যার ডেভেলপার হন তবেই।

সংক্ষিপ্ত কিন্তু আকর্ষণীয়
বুলেট পয়েন্ট অথবা অনুচ্ছেদ, যেভাবেই লিখুন না কেন আপনি শুধুমাত্র তুলে ধরবেন আপনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ এবং দক্ষতাগুলো। খেয়াল রাখতে হবে যেন কোনমতেই চার বাক্যের বেশি না হয়। নয়তো মানুষ বিরক্ত হয়ে আপনার প্রোফাইল নাও পড়তে পারে।

সমন্বয় রাখুন
সবশেষে দেখুন আপনার প্রোফাইল কতটা নান্দনিক। এটা পড়তে এবং দেখতে ভালো লাগছে কি? বানান, ব্যাকরণ যাচাই করে দেখুন। পরিহার করুন দীর্ঘ এবং কঠিন বাক্য। মনে রাখবেন এটা পুরোপুরিই আপনার রেজিউমির মত একটা বিষয়। আপনার সম্ভাব্য চাকুরিদাতা আপনার সাথে সরাসরি দেখা হওয়ার আগেই এর মাধ্যমে আপনার সম্পর্কে জানতে পারছেন। সুতরাং আপনার লিংকডইন প্রোফাইল আপনার সম্পর্কে মানুষকে কি ধারণা দেয় সেটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

মূল লেখকঃ জো লোভ্যাট

অনুলিখনঃ জামিয়া রহমান খান তিসা

কেমন হবে আপনার রেজিউমি?

850 565 Jamia Rahman Khan (Tisa)

চাকুরি কিংবা ইন্টার্নশিপ সব জায়গাতেই সর্বপ্রথম যা আপনাকে উপস্থাপন করবে তা হলো আপনার রেজিউমি। এই একটি জিনিসই ঠিক করবে আপনি চাকুরিদাতার সামনে নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ পাবেন কি পাবেন না। তাই রেজিউমিটি পরিপাটি হওয়া অতি আবশ্যক।    read more

কমফোর্ট জোন কে না বলুন

1000 639 Jamia Rahman Khan (Tisa)

আপনার লোকজনের সাথে কথা বলা প্রয়োজন কিন্তু আপনি তাতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন না, নেটওয়ার্ক বাড়াতে অপরিচিত মানুষের সাথে যোগাযোগ প্রয়োজন সেখানেও আপনার মাঝে দ্বিধাবোধ কাজ করে। আবার দেখা যায় মিটিংয়ে হয়তো কিছু কথা আপনার নতুন একটা পরিচিতি দেয় কিন্তু আপনি সাহস করে কথাই বলতে চান না। এই ব্যাপারগুলি আমাদের কর্মক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু ব্যাক্তিগতভাবে এই জিনিসগুলি আমরা এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করি। read more