Monthly Archives :

July 2017

Everyday Leadership: An Interview with Anik Sinha

5012 3648 Noshin Noorjahan

Over the years that I have been affiliated with BYLC, I met graduates who accomplished concrete goals at an age I deemed too young to achieve anything. I find their stories fascinating and look forward to learning about their perspectives towards life. read more

কিছু অভ্যাস বদলে দেবে পরিবেশ

1600 1329 Jamia Rahman Khan Tisa

আমরা প্রায়ই আফসোস করে বলি-“পরিবেশটা ধ্বংস হয়ে গেলো।” পরিবেশ দূষণ কমানো কি আদৌ খুব কঠিন কাজ? এর দায় কি শুধুই সমাজের হর্তাকর্তাদের? আমিও তো এই পরিবেশেরই একটা অংশ। দায় তো আমারও আছে। কোনোদিনও কি ভেবেছি আমার একটু খানি বদলে যাওয়া এই পরিবেশটাকে বাঁচাতে পারে। আসুন জেনে নিই এমন কিছু সহজ অভ্যাসের কথা যা আমাদের পরিবেশটাকে করে তুলতে পারে আরও সুন্দর।

বাইসাইকেল ব্যবহারে ভালো থাকবে পরিবেশ
ছবিসূত্রঃ Inhabitat

১.বেছে নিন বাইসাইকেল

অল্প দূরত্বের পথ পাড়ি দিন বাইসাইকেলেই। পরিবেশ তো ভালো থাকবেই, শরীরটাও ভালো থাকবে, যানজটের ঝামেলা পোহাতে হবেনা। উপরন্তু বেঁচে যাবে খরচটাও। এই অভ্যাসটি গড়ে তুলতে পারলে পরিবেশ দূষণ কমানোর পাশাপাশি লাভবান হবেন আপনি নিজেও।

 

ময়লা ফেলুন নির্দিষ্ট জায়গায়
ছবিসূত্রঃThe Indian Express

২.যেখানে সেখানে ময়লা ফেলা বন্ধ করুন

এটি বহুল প্রচলিত কথা হলেও বহুল অমান্য ও বটে। আমরা যেখানে সেখানে ময়লা ফেলাটাকে খুব একটা গুরুত্বের সাথে দেখিনা। ধরণ অনুযায়ী ময়লা ফেলুন নির্দিষ্ট জায়গায়। নেহাতই আশেপাশে ময়লা ফেলার ব্যবস্থা না থাকলে সেটি সংরক্ষণ করুন। আরেকটা বদভ্যাস হলো রাস্তাঘাটে কফ বা থুতু ফেলা। এটি একদিকে যেমন রাস্তাঘাট নোংরা করে তেমনি ছড়ায় রোগজীবাণু।

 

রিসাইক্লিং পণ্য ব্যবহার করুন
ছবিসূত্রঃPinterest

৩.রিসাইক্লিং পণ্যকে প্রাধান্য দিন

রিসাইক্লিং পণ্য সবসময়ই পরিবেশবান্ধব। যতদূর সম্ভব রিসাইক্লিং পণ্য নিজে ব্যাবহার করুন এবং অন্যকে উৎসাহিত করুন।এতে খরচও কমবে আর পরিবেশ ও ভালো থাকবে। ব্যবহার্য জিনিসপত্র নষ্ট হয়ে গেলে সেটা ফেলে না দিয়ে নতুন কিছু তৈরি করতে পারেন।

 

পানি দূষণ রোধে সচেষ্ট হোন
ছবিসূত্রঃCPCB ENVIS

৪.পানির অপচয় ও দূষণ রোধে সচেতন হোন

পানির যথেচ্ছ ব্যবহারকে না বলুন। গোসল কিংবা হাতমুখ ধুতে গেলে আমরা অকারণেই কলের পানি ছেড়ে রাখি। এতে করে অপ্রয়োজনে নষ্ট হচ্ছে প্রচুর পানি। একদিকে আমরা পানি নষ্ট করছি, অন্যদিকে পৃথিবীর আরেক প্রান্তে মানুষ সুপেয় পানির অভাবে চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে। অচিরেই হয়তো এই দুর্দিন আমাদের ও দেখতে হবে যদি না আমরা পানি অপচয় বন্ধ করি। পানিদূষণের জন্য প্রত্যক্ষ ভাবে যে কারণগুলোর জন্য আপনি দায়ী সেগুলো বন্ধ করুন। বর্জ্য পানিতে ফেলবেন না।

 

অরগানিক খাবার স্বাস্থ্য ও পরিবেশ দুই ই ভালো রাখবে
ছবিসূত্রঃKerala Breaking News

৫.পাল্টে ফেলুন খাদ্যাভাস

ভেজাল এবং রাসায়নিক উপাদানমুক্ত অর্গানিক খাবার গ্রহণ করুন। তাহলে রাসায়নিক উপাদানযুক্ত খাবারের বাজার কমবে আর পরিবেশও ভালো থাকবে। বারান্দায়, ছাদে কিংবা বাড়ির সামনের ফাঁকা জায়গাটিতে কিছু শাকসব্জির চাষ করা যেতে পারে। এতে যেমন খরচ কমবে, পরিবেশ ভালো থাকবে তেমনি সুস্থ থাকবেন আপনি নিজেও।

 

পরিবেশ বান্ধব এলইডি বাতি
ছবিসূত্রঃ Latest Cool Gadgets from China

৬.বদলে ফেলুন বাতি

এলইডি বাতি ব্যবহার করুন। এলইডি বাতির ব্যবহারে বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয় প্রায় ৯০ ভাগ।আর এটি পরিবেশবান্ধব ও বটে।

 

শক্তির সঠিক ব্যবহার করুন
ছবিসূত্রঃ123RF. com

৭.বিদ্যুৎ ও গ্যাসের ব্যাবহারে সাশ্রয়ী হোন

প্রয়োজন শেষে লাইট ও ফ্যানের সুইচ বন্ধ করুন। অকারণে গ্যাসের চুলা জ্বালিয়ে রাখবেন না। মনে রাখবেন জ্বালানি সাশ্রয়ের মাধ্যমে পরিবেশ দূষণ কমানো যেতে পারে অনেকাংশে। পরিবেশবান্ধব জ্বালানি ব্যবহার করুন।

 

পরিবেশ বাঁচাতে গাছ লাগান
ছবিসূত্রঃSave trees Save Earth

৮.গাছ লাগান

সুযোগ পেলেই গাছ লাগান। যারা শহরাঞ্চলে থাকেন তারাও গাছ লাগান।বারান্দায় কিংবা ছাদে বাগান করতে পারেন। সবুজে বাঁচুন। মন যেমন স্নিগ্ধ থাকবে, তেমনি পাবেন অক্সিজেনের যোগান।

 

পরিবেশ দূষণরোধে চারপাশের মানুষকে জানাতে পারেন
ছবিসূত্রঃGym Junkies

৯.নিজে জানুন, অন্যকে জানান

পরিবেশ রক্ষায় আগে নিজে সচেতন হোন। আপনার কাজে কর্মে, অভ্যাসে, আচরণে প্রকাশ পাক পরিবেশের প্রতি আপনার ভালোবাসা। এতে করে আপনাকে দেখে অন্যরাও উৎসাহিত হবে। কোন আড্ডা বা গল্পছলে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে পারেন। আর লেখালেখির মাধ্যমেও মানুষকে জানানো যেতে পারে এবং করে তোলা যেতে পারে সচেতন।

পরিবেশ না বাঁচলে আমাদের অস্তিত্ব টিকে থাকার কোনো প্রশ্নই আসেনা। পরিবেশকে ভালোবাসুন, এতে আপনারই লাভ। আমাদের ছোটো ছোটো এই অভ্যাসগুলোই সুন্দর করবে আমাদের পরিবেশ। আসুন পরিবর্তন আনি নিজের মাঝে, বাঁচাই পরিবেশ।

ফিচার ছবিসূত্রঃ bambegin smile

Things will go Wrong: The Nightmares of Public Speaking

2592 1389 Nubaira Forkan

For the longest time, I debated using a prop, especially one as blatantly patriotic as the flag.

It was ROSTRUM week at my primary school. Children stood at the head of their class and gave a short speech on a topic of their (let us be honest, parent’s) choice, their voices undulating with the shaking of their knees. By the time we got to our closing remarks, no amount of air conditioning could protect us from the sweaty lips and erratic eye twitching that are the hallmarks of the Australian heat. We were, in equal parts, unprepared and overly prepared. The night before, we stood on furniture, dizzy, our parents staring at us expectantly, making us make and remake our opening anecdotes. Yet, we, not one of us, knew what a ‘rostrum’ actually was. My preparation went one step further; for that one week the internet became my temple. There was no public speaking forum stone left unturned. In hind-sight that probably did more damage than good.

The night before my speaking rounds, I stood, flustered, over my tattered and sweat stained flash cards and a thinning cotton Bangladeshi flag. I was going to be educating my class of predominantly Anglo-Saxon and Chinese students about the Bangladeshi Liberation War. The facts were well researched, the emotions strategically intoned, and yet the speech was incomplete. “In 1971, the West Pakistani Army…uff,na…In 1971, on the night of March 25th…no,too dark…In 1971, my country was liberated…”. It was not a good night. In an effort to inject some panache into my speech, I debated over adding a prop. Nothing says patriotic diatribe like a flag. The only dilemma: all the public speaking gurus advised against it lest the prop detract the audience’s attention from the speech. Sadly, that wasn’t the only problem.

A pro tip for giving a speech is choosing focal points. Focusing on certain people in different parts of the audience engages everyone in the room. So it didn’t help that I was half-blind. I had noticed my eye-sight waning a few months earlier. It was getting harder to see the board and recognize people from afar. I could’ve gotten prescription glasses, but I was hiding my problem, specifically from my mother. I was afraid that she would take away my books – the small script and yellowed pages, and my dark time reading, the main contributors to my myopia. In any case, anyone in any audience was a blur to me and there was no point to these focal points.

There is a certain calming effect on the speaker when you have someone you know and trust in the audience: a family member or friend. My family couldn’t make it: my mum had classes and my brother was too young. Having entered school in the middle of the school year in Canberra, by which time the cliques were constructed and enemy lines drawn, I was having trouble making friends. I talked to my class mates but our interactions were strictly cursory. I wasn’t close enough to anyone to make their presence in the audience a comfort. Ultimately, on the day of my speech, I faced a sea of people I could not and did not know.

Probably the lowest point was when we lost the microphone. In the beginning, the students would give their speeches using mikes to their classes which numbered, at most, thirty. But by Wednesday, my speech day, the auxiliary cable for the speakers in the classroom failed and we were relocated. I was prepared for this failure, in mind if not in reality. My forums told me to enunciate and that my voice will carry my speech home. But I was a shy girl in a foreign land; the chances of me vigorously enunciating were slim – the power of the microphone was my lifeline. And I was drowning.

In an effort to counteract the need of a microphone they relocated us to the main hall. The cavernous hall, that served as our auditorium, had great acoustics but I did not. The teachers instructed us to project our voices. Louder. LOUD-ER. I could not mold myself to ‘project’. To exacerbate the matter, the main hall also served as the gym. At the start of P.E. classes, we would push the chairs against the walls and pull out the racks of balls and makeshift goals from behind the stage, and at the end of class the hall was returned to its original state. When my turn came, the hall was filled with the older classes in the middle of P.E. When I finally made it onto the stage, I was faced with a sea of despondent faces, sweaty overalls and the distinct smell of ridicule.

That day, I gave a speech on a stage, where I was expecting level ground. I gave a speech in front of sixty, where I was expecting half of that. I had no comforting microphone to even out my shakes and tremors. The walls and people were blurry. However, in that moment of flailing nervousness, I realized my resolution was not. I had come to give a speech and, by God, I would give it.

 

“In 1971, my home country, Bangladesh, earned its independence, surviving the ravenous clutches of the West Pakistani Army……”

 

It would be remiss of me to say my speech went well. It went terribly. Almost no one beyond the front row could hear me and, at the end, one boy’s constructive criticism was, “May be try and make your speech a little funnier”. (Sigh)

However, like at the end of almost all essays, I can honestly say I learnt a lesson. Things will go wrong (roll credits) and we just have to make do. Our shyness, blindness, or indecision cannot hamper us from, not just public speaking, but taking on challenges, and growing. So be strong, God knows I tried to be.

সমস্যা যখন অ্যাডাপ্টিভ

3872 2592 Jamia Rahman Khan Tisa

বেশ ক’বছর আগের কথা। আমার এক আত্মীয়ের হার্টের অসুখ ধরা পড়লো। উনি সিগারেট খেতেন প্রচুর আর রিচফুড ছিলো উনার সবচেয়ে প্রিয়। সপ্তাহে তিনদিন গরুরমাংস না খেলে উনার চলতোই না। read more

How to give a great presentation?

1117 704 Md. Touhidul Imran Chowdhury

CREATING a significant impression of an individual, group or an organization is supported by great presentation skills. In today’s world ‘giving presentation’ has become a common phenomenon, but it requires enormous discipline, practice and preparation to make it perfect. One has to take both mental and physical preparations. In order to remain relaxed and comfortable while giving a presentation or while explaining a problematic passage; the speaker may ‘speech practice’ in front of a mirror, a friend or even a pet animal. First time speakers should rehearse as many times as possible. Once speaker gets comfortable with speaking in front of the audience, he or she will automatically feel more confident the next time. read more